JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
logo shaistaganj
,
sanvi stor
সংবাদ শিরোনাম :
«» ব্যানার ফেস্টুন অপসারণের কাজ করছে হবিগঞ্জ পৌরসভা «» মাধবপুরে সংঘর্ষে আহত ৬, দোকানে আগুন «» হবিগঞ্জ-৩ আসনের প্রার্থীতা নিয়ে গুজবে কান না দেয়ার আহবান «» শাহজালাল (র.) মাজার জিয়ারত শেষে নির্বাচনী এলাকায় বিএনপির একক প্রার্থী সৈয়দ একরামুজ্জামান সুখন «» শায়েস্তাগঞ্জে শীতের আগমনে ব্যস্ত সময় পার করছেন লেপ তোষকের কারিগররা «» শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় নবনিযুক্ত নির্বাহী অফিসার এস, এম ফেরদৌস ইসলাম এর যোগদান «» বাহুবলে ট্রাক চাপায় স্কুল ছাত্রের মৃত্যু «» জন্মদিনের ভালোবাসায় সিক্ত : আমি কৃতজ্ঞ… «» হবিগঞ্জবাসী ফের অর্থমন্ত্রী পাবার স্বপ্নে বিভোর «» হবিগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৩৬ সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

লাখাই উপজেলায় অর্ধশতাধিক পূজামন্ডপ পরিদর্শনকালে এমপি আবু জাহির

MP Abu Zahir Pic 1

স্টাফ রিপোর্টার ॥ লাখাই উপজেলার অর্ধশতাধিক পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেছেন হবিগঞ্জ সদর, লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট মোঃ আবু জাহির। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন ইউনিয়নের এই পূজামন্ডপগুলো পরিদর্শন করেন তিনি। প্রতিটি মন্ডপে গিয়ে সনাতন ধর্মা বলম্বীদের সকল সুবিধা নিশ্চিতের ব্যাপারে তাদের সাথে কথা বলেন এমপি আবু জাহির।

পৃথক পূজামন্ডপ পরিদর্শনকালে এমপি আবু জাহির বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। এই সরকারের আমলে সকল ধর্মের মানুষজন যার যার ধর্মীয় উৎসব সঠিকভাবে পালন করতে পারেন। বিএনপি জামায়াতের আমলে দুর্গাপূজাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করতে হয় আতঙ্কের মধ্য দিয়ে। কারণ তারা সারাদেশে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সৃষ্টি করে মানুষের ধর্মীয় কর্মকান্ডে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করত। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে সকল ধর্মের মানুষই যার যার ধর্মীয় উৎসব অত্যন্ত আনন্দমুখর পরিবেশে পালন করতে পারেন।

তিনি আরো বলেন, হবিগঞ্জসহ সারাদেশের প্রতিটি মন্ডপে আমরা ৫০০ কেজি করে চাউল প্রদান করেছি। বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলের আর্থনৈতিকভাবে অস্বচ্ছল লোকজন এই চাউল পেয়ে সুন্দরভাবে তাদের দুর্গোৎসব পালন করতে পারছেন। কিন্তু বিএনপি-জামায়াত সাধারণ মানুষকে সহায়তা দেবে দূরে থাক, তারা জনগণের সম্পত্তি লুটপাটে ব্যস্ত থাকে। এছাড়াও হবিগঞ্জ সদর-লাখাই এবং শায়েস্তাগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরে আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহবান জানান তিনি। এ সময় শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে সরকারের পক্ষ থেকে এবং সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি ব্যক্তিগতভাবে প্রতিটি পূজামন্ডপে সহায়তা প্রদানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন পূজারীবৃন্দ।

সকাল ১১টায় শুরুতেই ১নং লাখাই ইউনিয়নের সকল পূজামন্ডপ পরিদর্শনে যান এমপি আবু জাহির। এর পর মুড়াকরি, বামৈ, বুল্লা এবং করাব ইউনিয়নের ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের সকল পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেন তিনি। এছাড়াও সঠিকভাবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বৃহৎ এই উৎসবটি যাতে সুষ্ঠু-সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয় সে ব্যাপারে নজর রাখার জন্য স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন এবং আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী নেতৃবৃন্দকে নজর রাখার জন্য নির্দেশ দেন এমপি আবু জাহির।

পূজামন্ডপ পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন লাখাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট মুশফিউল আলম আজাদ, সহ সভাপতি শরীফ উদ্দিন তালুকদার, সিরাজুল ইসলাম, জ্যোতিষ পাল, নুরুজ্জামান মোল্লা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন মাস্টার, শাহ রেজা উদ্দিন আহমেদ দুলদুল, মুড়িয়াউক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাই, করাব ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল হাই কামাল, ১নং লাখাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর আলম মাহফুজ, সাধারণ সম্পাদক এনায়েত উল্লাহ, সাবেক সভাপতি আনফর আলী তালুকদার, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকরামুল মজিদ চৌধুরী শাকীল, সহ সভাপতি জামাল তালুকদার, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি আমিরুল ইসলাম আলম, উপজেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম আহবায়ক ইসমাইল রানা, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মোল্লা, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবাযক খাইরুদ্দিন, যুগ্ম আহাবয়ক শরিফুল ইসরাম রনি, আব্দুল্লাহ আল রনি, নজরুল ইসলাম, আলফাজুল আলম মুনির, রাসেল আহমেদ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা সৌকত মেম্বার, লাখাই ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মারুফ, বামৈ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এংগু আহমেদ রুবেল, লাখাই ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের আহবায়ক নাসির চৌধুরী, মোড়াকরি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইসহাক মিযা, আওয়ামী লীগ নেতা মোজাহিদ মিয়া, মাহফুজুর রহমান মাহফুজ, ইকবাল হোসেন ছোট্ট, সাবাজ মেম্বার, হাজী ইসহাক মিয়া, মুক্তার আলম, সালাহ উদ্দিন সুমন, এডভোকেট কামরুল, বশির আহমেদ, পেরু মিয়া, কানু রায়, রাজ কিশোর দাশ, জগদীশ পাল, আক্রম আলী, মরম আলী মেম্বার, বাহার মেম্বার, তোফাজ্জুল মিয়া, তাজ উদ্দিন আহমেদ তারেক, বামৈ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ওমর ফারুক সরদার, আব্দুর রহমান সরদার, জব্বার মিয়া সরদার, কৃষক লীগ নেতা রায়হান উদ্দিন মেম্বার, যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন মেম্বার, ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ নেওয়াজ, আওয়ামী লীগ নেতা ভূপেন্দ্র গোপ, তাউছ মেম্বার, ক্ষীতিন্দ্র গোপ, আব্দুর রাজ্জাক মেম্বার, বুল্লা ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম, করাব ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক, ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান, করাব আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জ্যোতি রঞ্জন সিনহা, আওয়ামী লীগ নেতা মালেক মেম্বার, বিষ্ণু পাল, খলিলুর রহমান, সাংবাদিক পান্ডব বিশ্বাসসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *