JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
logo shaistaganj
,
sanvi stor
সংবাদ শিরোনাম :
«» ব্যানার ফেস্টুন অপসারণের কাজ করছে হবিগঞ্জ পৌরসভা «» মাধবপুরে সংঘর্ষে আহত ৬, দোকানে আগুন «» হবিগঞ্জ-৩ আসনের প্রার্থীতা নিয়ে গুজবে কান না দেয়ার আহবান «» শাহজালাল (র.) মাজার জিয়ারত শেষে নির্বাচনী এলাকায় বিএনপির একক প্রার্থী সৈয়দ একরামুজ্জামান সুখন «» শায়েস্তাগঞ্জে শীতের আগমনে ব্যস্ত সময় পার করছেন লেপ তোষকের কারিগররা «» শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় নবনিযুক্ত নির্বাহী অফিসার এস, এম ফেরদৌস ইসলাম এর যোগদান «» বাহুবলে ট্রাক চাপায় স্কুল ছাত্রের মৃত্যু «» জন্মদিনের ভালোবাসায় সিক্ত : আমি কৃতজ্ঞ… «» হবিগঞ্জবাসী ফের অর্থমন্ত্রী পাবার স্বপ্নে বিভোর «» হবিগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৩৬ সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার

লাখাইয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত

২২২৩

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :হবিগঞ্জের লাখাইয়ে জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধ নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আব্দুল হাকিম (২৬) নামে এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত আরো ২০ জন। সংঘর্ষ চলাকালে বাড়িঘর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে লাখাই থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। গতকাল সকাল ১০টায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, উপজেলার মুড়াকরি গ্রামের আশ্বব আলীর পুত্র তৌহিদ মহুরির সাথে একই গ্রামের কাইয়ুম মিয়ার বাড়ির পার্শ্ববর্তী জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। গত শনিবার এ বিষয় নিয়ে উভয় পক্ষের বাক-বিতন্ডা হয়। পরে স্থানীয় মাতব্বরা বিষয়টি নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেন। এরপরও সমাধান না হওয়ায় গতকাল সকালে ওয়াহিদ মিয়ার পুত্র আব্দুল হাকিমকে রাস্তায় একা পেয়ে তৌহিদ গংরা অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আব্দুল হাকিমকে পেটে টেটাবিদ্ধ হয়ে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কামরুল হাসান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবরটি এলাকায় পৌছলে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় আবদুল হামিদ, পাভেল আহমেদ, রুবেল, ইসমাইল, ইসরাইল, মোতাব্বির, আব্দুর রউফ, বাদশা মিয়া,সাব্বির মিয়া, রুখন মিয়া, সোলেমা বেগম, রবিউল মিয়া, শিরু মিয়া, আমিরুন নেছা, আলী হোসনে, আলমগীর, মিজান মিয়া, উসমান মিয়া, ও মুছা মিয়াকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্য আহতদেও লাখাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়। খবর পেয়ে লাখাই থানার ওসি এমরান হোসেনসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানীয়দের সহযোগীতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ব্যাপারে ওসি জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *