JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
logo shaistaganj
,
sanvi stor
সংবাদ শিরোনাম :
«» নিজামপুরে ধানের শীষের সমর্থনে জনসভা অনুষ্ঠিত «» শায়েস্তাগঞ্জের বিশিষ্ঠ মুরুব্বী জিতু মিয়া আর নেই, জানাযায় মুসল্লির ঢল «» চুনারুঘাটে ইউনিসেফের যৌথ পরিদর্শনে বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়েছে সুন্দরপুর কমিউনিটি ক্লিনিক «» নিখোঁজের দেড় মাস পর নবীগঞ্জে গৃহবধূর কংকাল উদ্ধার, আটক ১ «» অলিপুরে ট্রাক-মোটর সাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ «» বাহুবলে নানা আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন «» শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে হবিগঞ্জে আলোক প্রজ্বলন «» নবীগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু «» নাসিরনগরে মহাজোট প্রার্থী বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রামের নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত «» নাসিরনগরে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)

68127

ডেস্ক ॥ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ। ১৪৪০ বছর আগে ১২ই রবিউল আউয়াল আরবের পবিত্র মক্কা নগরীতে বিশ্বনবী হযরত মুহম্মদ (সা.) জন্ম গ্রহণ করেন। ৬৩ বছর পর একই দিনে তিনি ইহলোক ত্যাগ করেন। তাই মুসলিম উম্মাহর জন্য আজকের এ দিনটি যেমন আনন্দের, তেমনি শোকের।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) যথাযথ মর্যাদায় পালনের জন্য এরই মধ্যে ব্যাপক উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয় ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠন আলোচনা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে। বিশ্বনবী হযরত মুহম্মদ (সা.) ইতিহাসের এক অতুলনীয় আদর্শ। বর্বর আরব সমাজে তার আবির্ভাব বদলে দিয়েছিল গোটা সমাজ ব্যবস্থাকে। মানবতার মুক্তির দূত হয়ে তিনি আরব সমাজের পাশাপাশি গোটা পৃথিবীর মানুষের জন্য নিয়ে এসেছিলেন শান্তির অমোঘ বার্তা।

মহানবী হযরত মুহম্মদ (সা.) কে অন্য ধর্মাবলম্বী অনেকেই সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী বিখ্যাত পণ্ডিত মাইকেল এইচ হার্ট তার বহুল আলোচিত ‘দ্য হান্ড্রেড’ গ্রন্থে হযরত মুহম্মদ (সা.) কে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানুষ হিসেবে স্থান দিয়েছেন।

সাহিত্যিক জর্জ বার্নার্ড শ’ বলেছেন, এই অশান্ত পৃথিবীতে তাঁর মতো একজন মানুষের প্রয়োজন। তাঁর আগমনে যে বিপ্লবের সূচনা হয়েছিল দুনিয়াজুড়ে তা বিস্তৃত হয়েছে। মহানবী (সা.) কে বলা হয় সাইয়্যিদুল মুরসালিন। অর্থাৎ সব নবী ও রাসুলের নেতা। তিনি নিখিল বিশ্বের নবী।

তার জন্মের সময় আরব দেশ অশিক্ষা, অজ্ঞতা, কুসংস্কার ও ঘোর তমসায় নিমজ্জিত ছিল।
এ কারণে ওই সময়কে বলা হয় ‘আইয়্যামে জাহেলিয়াত বা অন্ধকারের যুগ’। ওই বর্বর যুগে পৈশাচিক স্বভাবের কালিমাতে মানুষের মানবিক গুণাবলীর অপমৃত্যু ঘটেছিল। সে অবস্থা থেকে মানব জাতিকে মুক্তি দিতে মহান আল্লাহ্ হযরত মুহম্মদ (সা.) কে সর্বশেষ রাসুল হিসেবে পৃথিবীতে পাঠান।

এ বিষয়ে পবিত্র কোরআনের সূরা আম্বিয়ার ১০৭ নম্বর আয়াতে আল্লাহ্ বলেছেন, ‘আমি আপনাকে সারা বিশ্বের জন্য রহমত হিসেবে পাঠিয়েছি।’ মহান আল্লাহ্ পুরো মানবজাতির জন্য সর্বাপেক্ষা কল্যাণকর, পরিপূর্ণ জীবন-বিধান সংবলিত পবিত্রতম আসমানি কিতাব ‘আল-কোরআন’ নাজিল করেন মহানবী (সা.)-এর ওপর। প্রতিবছর ১২ই রবিউল আউয়ালকে অতীব গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে পালন করে মুসলিম বিশ্ব। বিশ্বজুড়ে পালিত হয় মিলাদ, জশনে জুলুসসহ বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান।

সূত্র : মানবজমিন

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *