JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
logo shaistaganj
,
ইসলামী একাডেমি এড
সংবাদ শিরোনাম :

জনসেবা বাড়ানোর জন্য উদ্ভাবন চাই-জেলা প্রশাসক

??

স্টাফ রিপোর্টার॥ হবিগঞ্জে নাগরিক সেবার উদ্যোগ সমূহের জেলা পর্যায়ে ইনোভেশন শোকেসিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বুধবার সকালে বিকেজিসি সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে সেমিনার, কুইজ প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন এই কর্মসূচির আয়োজন করে।

প্রধান অতিথি হিসাবে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ। সহকারী কমিশনার আইসিটি জান্নাত আরা লিসার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মর্জিনা আক্তার, পানি উন্নয়ন বোর্ড এর নির্বাহী প্রকৌশলী তাওহীদুল ইসলাম, বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েশা হক, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাখাওয়াত হাসান রুবেল।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ বলেন, আমরা গতানুগতিক কাজ থেকে বের হতে চাই। কিভাবে জনগনকে সহজে সেবা দেয়া যায় তার জন্য উদ্ভাবনী চিন্তা করতে হবে। এমন উদ্ভাবন চাই যেগুলো সারা দেশেই আলোচিত হয় এবং দেশের কাজে লাগে।

পরে প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ এর উপর সেমিনারে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সরকারী বৃন্দাবন কলেজের সহকারী অধ্যাপক ড. সুভাষ চন্দ্র দেব। পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তিনি প্রধানমন্ত্রী’র অনন্য উদ্যোগ ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে আইডিয়া ইনোভেশন সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তিনি জানান, একটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনা প্রনয়ন,উদ্ভাবন সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং উদ্ভাবনী আইডিয়াসমূহ যাচাই-বাছাই করে মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পাইলটিং এর পর প্রাপ্ত ফলাফল উপস্থাপনের জন্যই এই ইনোভেশন শোকেসিং। নাগরিক সেবায় ইনোভেশনের মাধ্যমে কোনো সমস্যার গতানুগতিক সমাধানের পরিবর্তে জনগনের কাছে অধিক গ্রহণযোগ্য নতুন সমাধান আসবে। এর ফলে পদ্ধতিগত জটিলতা কমবে, সেবার মানোন্নয়ন ঘটবে, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জনসম্পৃক্ততা বাড়বে। তিনি শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও জনপ্রশাসনের বিভিন্ন উদ্ভাবনী আইডিয়ার কথা উল্লেখ করেন।

অনুষ্ঠানে হবিগঞ্জ শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে আইসিটি বিষয়ে কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণে জেলার ১০টি স্টলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের ইনোভেশন প্রদর্শন করে। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা ও আইসিটি শামসুজ্জামান বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

Share Button

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *