বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

বিশ্বনাথে ১৮দিন পর বন্ধি দশা থেকে মুক্ত সুফিয়া রাস্তার ওপর নির্মিত প্রতিপক্ষের দেয়াল ভেঙে দিল গ্রামবাসী

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৫

2369মোঃ আবুল কাশেম,বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : সিলেটের বিশ্বনাথে শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলার শাহজিরগাঁও গ্রামের মারামারি ঘটনায় প্রতিপক্ষের রাস্তার ওপর নির্মিত দেয়াল ১৮দিন পর ভেঙে দিয়েছে গ্রামবাসী। ফলে বন্দি দশা থেকে মুক্তি পেল একটি পরিবার।

জানা গেছে, গত ২৫ জুলাই রাতে উপজেলার শাহজিরগাঁও গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুন নুর এর বাড়িতে গ্রামের মসজিদের জায়গা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বৈঠকে পূর্ব বিরোধের জের ধরে শাহজিরগাঁও গ্রামের রফিক আলী ও মানিক মিয়ার লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় মানিক মিয়াসহ তাদের পক্ষের আহত হন দুদু মিয়া, সোনাফর আলী, রুপ আলী। রফিক মিয়াসহ তাদের পক্ষে আহত হন কুদ্দুছ আলী, চান্দ আলী, আকলিছ আলী, জামাল মিয়া।

এঘটনায় গত ২৭ জুলাই বিশ্বনাথ থানায় মানিক মিয়ার পক্ষে সোনাফর আলীর পুত্র ও উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ফয়জুল ইসলাম জয় বাদি হয়ে প্রতিপক্ষের ১৩জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাতনামা ৭/৮জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং ২০।

অপরদিকে,এঘটনায় ২৮ জুলাই মঙ্গলবার রফিক মিয়া বাদী হয়ে সিলেট জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৩ এ মানিক মিয়াসহ প্রতিপক্ষের ৯জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৭/৮জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি সি.আর মামলা দায়ের করেছেন (২০৪/২০১৫)।

দায়েরকৃত অভিযোগটি ২৪ ঘন্টার মধ্যে এফ.আই.আর করে তাৎক্ষনিক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করে আগামী ৩০ জুলাইর মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বিশ্বনাথ থানার ওসি রুফিকুল হোসেনকে নির্দেশ প্রদান করেছেন জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নাজমুল হোসেন চৌধুরী। পরে থানা পুলিশ মামলাটি রের্কড করে।

সিলেটের বিশ্বনাথের শাহজিরগাঁওয়ে বন্দি একটি পরিবার নিয়ে এলাকায় শুরু হয় তোলপাড়। বিষয়টি মিটমাট করতে সামাজিকভাবে ইতিমধ্যে কয়েক দফা বৈঠক হয়েছে। এই যখন অবস্থা তখন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই’র একটি তদন্ত প্রতিবেদনে আলোচিত এ ঘটনা খোলাসা হয়েছে।

এদিকে, আদালত তদন্ত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। পিআইবি’র সাব-ইন্সপেক্টর শাহাদাৎ হোসেন খান গত ১০ আগষ্ট সিলেটের দ্রুত বিচার আদালতের বিচারক উম্মে সরাবন তহুরার কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। আর এই তদন্ত প্রতিবেদনে আসামি মানিক মিয়া, দুদু মিয়া, ফয়জুল ইসলামসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দ্রুত বিচার (সংশোধন) আইন, ২০১০ এর ২ (ই) (উ)/৫ ধারায় অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ সময় তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে সুপারিশ করে জানান, একজন বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে শাহজিরগাঁও গ্রামস্থ ৯ ফুট পাকা রাস্তায় নির্মাণ করা দেয়াল ভেঙে পূর্বের ন্যায় রাস্তা তৈরি করে চলাচলের সুব্যবস্থা করা। বিশ্বনাথের শাহজিরগাঁও গ্রামের মৃত আরজান আলীর স্ত্রী সুফিয়া খাতুন সিলেটে আদালতে একই গ্রামের মানিক মিয়া, দুদু মিয়া, ফয়জুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম, সোনাহর আলী, রূপ আলী, আয়না মিয়া, আব্দুল খালিক, সাবুল ও লিটন আহমদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

ওই অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, ২৫শে জুলাই রাত সাড়ে ৯টায় শাহজিরগাঁওয়ের আব্দুন নূর লন্ডনির বাড়িতে মসজিদের জমি নিয়ে বৈঠককালে আসামিরা তার ছেলে ও নিরীহ গ্রামবাসীকে পিটিয়ে আহত করে। এরপর আরও একাধিকবার প্রতিপক্ষরা হামলা করে।

এই ঘটনায় তার ছেলে রফিক মিয়া বাদী হয়ে সিআর (২০৪/১৫) মামলা করেন। এরপর আসামিরা ২৮শে জুলাই লোহার রড, খুন্তি, শাবল, হাতুড়ি, ছেনি, লাঠি-সুলফি নিয়ে ৪০০ ফুট পাকা রাস্তার ইট-সুরকি তুলে নেয়। এবং ৯ ফুট প্রশস্ত রাস্তায় দেয়াল তুলে ফেলে। এতে করে তার বাড়িতে বসবাসকারী কয়েকটি পরিবার অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে।

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে পিআইবি’র সাব-ইন্সপেক্টর শাহাদাৎ হোসেন খান তদন্ত শুরু করেন। তদন্ত শেষে সোমবার আদালতে দাখিল করা তদন্ত প্রতিবেদনে তিনি উেেল্লখ করেন, শাহজিরগাঁও গ্রামের মসজিদের পাশের বাড়ির মালিক জামাল আহমদ মসজিদের পাশের জমিটি তাকে দিয়ে দিতে গ্রামবাসীর কাছে আবদার করেন। এর বিনিময়ে বিলের ভেতর থেকে জমি তিনি বদলা হিসেবে দিয়ে দেবেন।

তার প্রস্তাবের সিদ্ধান্ত নিতে ২৪শে জুলাই জুমার নামাজ শেষে মসজিদের ভেতরে মোতওয়ালি ইসরাক আলী, তোরাব আলী মেম্বার, মোতলিব, দুদু মিয়া, মানিক মিয়া ও বাদীর ছেলে সুন্দর আলী, কুদ্দুস আলী, রফিক আলী, আশিক আলী সহ গ্রামের লোকজন বৈঠকে বসেন।

ওই বৈঠকে বাদী সুফিয়া খাতুনের বাদীর ছেলে রফিক আলী সহ অন্যান্য লোকজন মসজিদের জমি দিতে দ্বিমত পোষণ করেন। ফলে বিষয়টির মীমাংসা করতে ২৫শে জুলাই একই গ্রামের আব্দুন নুরের বাড়িতে এশার নামাজের পর বৈঠক আহ্বান করা হয়। ওই দিন বৈঠকে রফিক জানান যে, বর্তমানে মসজিদের অর্থের প্রয়োজন না থাকায় জায়গা বিনিময় করা হবে না। এ কথা শুনে দুদু মিয়া উত্তেজিত হয়ে উঠলে এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। এতে উভয়পক্ষের লোকজন মারাত্মক আহত হন।

এ ঘটনায় রফিক আলী আদালতে ও ফয়জুল ইসলাম বিশ্বনাথ থানায় মামলা তদন্ত প্রতিবেদনে তিনি উল্লেখ করেন, ২৮শে জুলাই সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সুফিয়া খাতুনের বাড়ি পুরুষশূন্য থাকায় আসামি মানিক মিয়া, দুদু মিয়া, ইরশাদ আলী, ফয়জু ইসলাম সহ অন্যরা শ্রমিক নিয়োগ করে চান্দ আলীর বাড়ির সামন পর্যন্ত দেয়াল নির্মাণ করে রাস্তা বন্ধ করে দেয়। একই সময় তারা অনুমান ৪০০ ফুট রাস্তার পাকা ঢালাই উপড়ে ফেলে। আর ঢালাই উপড়ে ফেলা স্থানে কলাগাছ রোপণ করে আসামিরা দ্রুত বিচার অপরাধ করেছেন বলে প্রতীয়মাণ হয় বলে আদালতে জানান তদন্ত কর্মকর্তা। এ কারণে তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে একজন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে রাস্তায় নির্মাণ করা দেয়াল ভেঙে পূর্বের ন্যায় রাস্তা তৈরি করার সুপারিশ করেন। তদন্তে আসামি নজরুল ইসলাম ও জাহাঙ্গীর হোসেনের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি বলে আদালতকে জানানো হয়।

এদিকে,১০ আগষ্ট আদালত তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন। সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশকে আগামী ২৪শে আগস্টের মধ্যে আসামিদের গ্রেপ্তার পূর্বক আদালতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এব্যাপারে রফিক মিয়ার মা সুফিয়া খাতুন বলেন, দীর্ঘ ১৮দিন আমারা বন্দি ছিলাম। আজ (শনিবার) সকালে ওয়ার্ড এর মেম্বার তোরাব আলীসহ গ্রামের মুরব্বিগণ আমাদের রাস্তায় নির্মিত দেয়ালটি ভেঙে দিয়েছেন। ফলে আমরা এখন বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়েছি।

এব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য তোরাব আলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বারটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!