শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:১৪ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

মাধবপুরে পিতা ও বাহুবলে পুত্রের ভূয়া হোমিও ডিসপেন্সারী খোলে রোগীদের সাথে প্রতারনা

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: সোমবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০১৫

প্রতারনাসৈয়দ আখলাক উদ্দিন মনুসর, শায়েস্তাগঞ্জ থেকে  : এস.এস.সি সনদ, ডিএইচএমএস সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে বাহুবল ও মাধবপুরে পিতা জিতু ও পুত্র কামাল ভূয়া হোমিও ডিসপেন্সারী খোলে রোগীদের সাথে প্রতারনা করে প্রসাশনের চোখে ফাকি দিয়ে রমরমা বানিজ্য। জানা যায়, হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বাঘাসুরা ইউনিয়নের শাহপুর বাজারে দীর্ঘ দিন যাবত কথিত জুলহাস উদ্দিন ওরফে জিত ুমিয়া ভূয়া শিক্ষাগত যোগ্যতার এস.এস.সি সনদ পত্র, ডি এইচ এম এস সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে ড্রাগলাইসেন্স ও সিভিল সার্জানের অনুমতি ছাড়াই কাপ্তান হোমিও হল চিকিৎসা কেন্দ্রখুলে রোগীদের সাথে গরু মোটাতাজা করণ ভারতের নিষিদ্ধ এনার্জিপ্লাস সিরাপ, যৌন উত্তেজক ইয়াবা, ডেকাসন টেবলেট দিয়ে চিকিৎসা করে প্রতিদিন গ্রামাঞ্চলের সাধারন নারী-পুরুষ, যুবক-যুবতী, শিশু-কিশোর কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা উপার্জন করে নিচ্ছে।

অনেকেই জানেন না, কথিত দুই ভূয়া হোমিও চিকিৎসক রোগীদেরকে কি ঔষধ দেওয়া হচ্ছে। দূর্বলতা রোগীকে গরুর মোটাতাজা করণ ভারতের নিষিদ্ধ এনার্জিপ্লাস সিরাপ, ডেকাসন টেবলেট খেয়ে চিকন লোককে মোটা স্বাস্থ্য করে দিয়ে এতে রোগীরা মনে করেন কথিত ডাক্তারের ঔষধ খুবই ভাল। আবার কোন রোগী ইয়াবা টেবলেট সেবন করলে যৌন উত্তেজক বেরে যায়। এসব ঔষধ খেয়ে অনেক রোগী কয়েক মাস পর লান্সে পানি, ক্যানসার সহ বিভিন্ন রোগে বিপদগামী হচ্ছে কিন্তু এসব রোগী উচ্চ পর্যায়ে ডাক্তার ও হাসপাতালে ডাক্তাররা চিকিৎসা করতে চান না। কথিত ভূয়া চিকিৎসক জুলহাস উদ্দিন ওরফে জিত ুমিয়া ৭ম শ্রেণী পর্যন্ত লেখা পড়া করে নামের পূর্বে ডাঃ ব্যবহার করে এলাকায় দাপটের সাথে মাধবপুরে শাহপুর বাজারে কাপ্তান হোমিওহল ও তার পুত্র এস এম কামাল বাহুবলের সাটিয়াজুরী বাজারে কামাল হোমিও ডিসন্সেসারী দীর্ঘ দিন যাবৎ ব্যবসা পরিচলিনা করে যাচ্ছে।

অপর দিকে মাধবপুর উপজেলা শাহপুর বাজারের কাপ্তান হোমিও হলের কথিত ভূয়া চিকিৎসক জুলহাস উদ্দিন জিতু মিয়ার পুত্র এসএমকামালকে দিয়ে বাহুবল উপজেলার সাটিয়াজুরি ইউনিয়নে সাটিয়াজুরি বাজারে কামাল হোমিও ডিসপেন্সারী দিয়ে বসে দীর্ঘ দিন যাবত প্রতারণা করে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু পিতার নেই যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা কোন সনদ পত্র্র এরপরও পুত্র এস এম কামালকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত লেখা পড়া অর্জন করিয়ে কথিত ভূয়া চিকিৎসক জুলহাস উদ্দিন জিতু মিয়ার অভিজ্ঞতা নিয়ে হোমিও চিকিৎসা পেশায় লিপ্ত এস এম কামাল। কথিত ভূয়া চিকিৎসক এস এম কামাল সাটিয়াজুরি বাজারে কামাল হোমিও ডিসপেন্সারী খুলে বসার পর পিতার চেয়ে পুত্র গ্রাম্য সাধারণ রোগীদের সাথে প্রতারনা করে গরুর মোটা তাজা করণ ঔষধ দিয়ে হাজার হাজার টাকা রমরমা বানিজ্য করে যাচ্ছে।

এসমস্ত ভেজাল হোমিও ঔষধ খেয়ে বহু রোগী মৃত্যু ঘটেছে। কিন্তু অনেকে বাড়ীতে বা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে রোগীরা। যেসব স্থানে ড্রাগ সুপার বা ভ্রাম্যমান আদালত যেতে পারে না সেই স্থান হচ্ছে মাধবপুরের শাহপুর বাজার ও বাহুবলের সাটিয়াজুরি বাজারে নির্বিঘেœ জেলা প্রশাসন ও সিলেটের ড্রাগসুপার মাহমুদ হাসান চোখে ফাঁকি দিয়ে প্রতারনা করে চিকিৎসা দিচ্ছে রোগীদেরকে। এসব অপ-চিকিৎসা পিতা-পুত্র প্রশাসনের হাত থেকে রক্ষার জন্য হবিগঞ্জ জেলায় ১৩৫ জনের হোমিও সংগঠনের ৬৫ নম্বর সদস্য রয়েছেন কথিত ভূয়া হোমিও চিকিৎসক এস এম কামাল কিন্তু তার পিতা এ সংগঠনের সদস্য নেই।

পিতা-পুত্র-দীর্ঘদিন যাবত চাবাগানের চা-শ্রমিক থেকে শুরু করে গ্রামের আপাময় নারী-পুরুষকে অপ চিকিৎসা করে গেলেও বহু রোগী জেলার দুরারোগ্য ব্যথিতে ভোগছে বলে কয়েক জন রোগী এ প্রতিনিধিকে অভিযোগ জানান। পিতা-পুত্রের প্রতারণা ব্যবসায় এলাকার কিছু টাউট বাটপার ও সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজনকে ম্যানেজ করে এব্যবসা সাথে জড়িয়ে পড়েছে। বিভিন্ন স্থানে এদের কর্মচারী দিয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে রোগে আরোগ্য চটকদার ভিজিটিংকার্ড, কুরুচিপূর্ণ, অশ্লীল ভাষায় হ্যান্ডবিল, লিফলেট, বিতরণ করে আপামর নারী-পুরুষকে আকৃষ্ট করে এনে মিষ্টি কথার ফান্দে ফেলে ধোকা দিয়ে অপ-চিকিৎসা চালিয়ে গেলেও প্রতিবাদ করার কেউ নেই।

কথিত ভূয়া হোমিও চিকিৎসক জুলহাস উদ্দিন ওরফে জিতু ুমিয়া ও তার পুত্র এস এম কামালকে ধরে কঠোর শাস্থি দিলে এ ধরণের প্রতারক চিকিৎসার হাত থেকে রক্ষা পাবে ভূক্ত ভোগী রোগীরা। ইতোমধ্যে মূলক হারবাল ও হোমিও চিকিৎসা বন্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে যেসব প্রতিষ্ঠান সিলগালা করা হয়েছে এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল প্যারিস হোমিও কমপ্লেক্স, দেশ হারবাল, কলিকাতা হারবাল লিঃ, শাহী দাওয়াখানা, জার্মাণ হোমিও মেডিক্যাল, এশিয়া হারবাল লিঃ, ইন্ডিয়া হারবাল লিঃ, ভারত হোমিও ডিসপেন্সারীসহ বিভিন্ন নামে প্রতিষ্ঠান যেখানে সেখানে রযেছে এবং বেশীর ভাগ দেশের গ্রামাঞ্চলে এদের চিকিৎসা কেন্দ্র। এদিকে দেশের বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমান আদালতের ভয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে শহর ও গ্রামাঞ্চলে হাটবাজারে ভূয়া হোমিও ডিসপেন্সারী ও কাপ্তান হোমিও হল প্রতিষ্ঠান চিকিৎসার নামে ভূক্তভোগী রোগীদের সাথে প্রতারনা করে গরু মোটাতাজা করনে ভারতের নিষিদ্ধ এনার্জিপ্লাস সিরাপ, যৌন উত্তেজক ইয়াবা, ডেকাসন টেবলেট দিয়ে চিকিৎসা করছে এব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালত ও ঔষধ প্রশাসন ভূয়া চিকিৎসকদের কঠোর ব্যবস্থা নেয়া উচিত বলে জেলার সচেতন ভূক্তভোগী মনে করেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!