বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

স্মৃতির পাতায় অন্যরকম পহেলা বৈশাখ-১৪২২

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৫

421এ.কে.এম. নুরুজ্জামান তরফদার (স্বপন)।পহেলা বৈশাখ বাঙ্গালী হৃদয়ে ঢেউ খেলাতে ও প্রাণচাঞ্চল্য জাগাতে আসা অপেক্ষামান একটা দিন। ছোটবেলায় চৈত্র মাস কবে শেষ হবে  বৈশাখ কখন আসেবে মেলায় কখন যাব সেই চিন্তা করতাম। মেলায় গিয়ে কি করব কি কিনব, কার সাথে যাব, কত টাকা লাগবে, বাবা মেলায় যাওয়ার অনুমতি দিবেন কি না। মাকে চুপি চুপি মেলায় যাওয়ার কথা বলতাম মা বাবাকে বলতেন বাবা অনেক সময় বাবা মেলায় হারিয়ে যাওয়ার কথা চিন্তা করে মেলায় যাওয়ার সম্মত হতেন না।

 

যে বছর বাবা অনুমতি দিতেন না সে বছর মনে অনেক কষ্ঠ পেতাম।যে বছর বাবা অনুমতি দিতেন কত আনন্দ পেতাম তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। মেলায় যাওয়ার আনন্দে রাতে ঘুম আসত না কখন সকাল হবে কখন মেলায় যাব কার সাথে যাব সেই চিন্তা করতাম। মা আমাকে কখনো একা মেলায় যেতে দেবেন না কারও সাথে যেতে হবে। মাঝে মাঝে বাবার সাথে মেলায় যেতাম । তখন আজকের মত যানবাহন ছিল না বেশীভাগ সময় পায়ে হটে চুনারুঘাট মেলায় যেতে হত। দুর থেকে মেলা যখন দেখতাম অনেক আনন্দ লাগত। যখন মেলার ভিতরে প্রবেশ করতাম দেখতাম লক্ষ মানুষের সমাগম এ মেলায়।

 

তখন চিন্তা হত একবার বাবার হাতছাড়া হলেই আমি মনেহয় হারিয়ে যাব আর বাবাকে পাব না। ভয়ে ভয়ে বাবার হাত ধরে প্রয়োজনীয় মালামাল কিনতাম বিশেষ করে মেলার হতে আম কাটার চাকুটা ছিল অন্যতম এছাড়াও বাশি, বল, ক্রিকেট খেলার বল, লাড়ু মুড়িসহ কত কিছুযে কিনতাম তখনকার মেলায় আনন্দ ছিল এক রকম।এবার পহেলা বৈশাখ উদযাপন শুধু জেলা শহরে এবং উপজেলা শহরে নয় প্রতিটি গ্রামের স্কুল, কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আয়োজন করা হয়েছে সেখানে ছোট বড় সবার এসেছিলেন মেলা  উদ্যযাপন করতে। এবারের পহেলা বৈশাখ উদযাপনের মাজাই অন্যরকম স্মৃতিতে লিখা থাকবে ।

অন্য যে কোন বৈশাখী বরন অনুষ্ঠানের মধ্যে এ বছর বৈশাখী বরন অনুষ্ঠানটি একটু ব্যতিক্রম ছিল । মেলায় আসা প্রত্যকটি শিশু , কিশোর, যুবক, যুবতী বাঙ্গালী এতিহ্য লালন করে পাঞ্জাবী ও লাল-সাদা শাড়ি পাশাপাশি বৈশাখ বরণে সেজেছিল ফুল দিয়ে কেউ কেউ আবার তাদের মুখমন্ডল ও শরীরের অনাবৃত অংশে বৈশাখী বিভ্ন্নি নকশা এঁকে বা জাতীয় পতাকা এঁকে মনের উচ্ছাস প্রকাশ করে গৌরববোধ করেছিল। সবাই দল বেঁধে রিক্স, টমটম ভাড়া করে  শহর নগর গ্রামগঞ্জে ঘুরে বেড়িয়েছে। প্রতিটি মেলার চারদিকে শুধু গুঞ্জন, নগরদোলার আওয়াজ, চরকি , পুতুল নাচ, ম্যাজিক শো, ছোট ছেলেমেয়েদের বিভিন্ন বাঁশি, আনন্দ-উচ্ছাস, বাঙ্গালী গানের অনুষ্ঠান ইত্যাদি বাঙ্গালী সংস্কৃতির একটি শাশ্বতরূপ জেগে উঠে ছিল মেলা গুলোতে।

অতীত ঐতিহ্যের গৌরব, সংস্কৃতির প্রতি অনুরাগ, জাতিসত্তার চেতনা পহেলা বৈশাখের উৎসবকে নানা পরিবর্তনের মধ্যে পরিণত করেছে বাঙালির জীবনের প্রধান উৎসবে।বাঙ্গালী ঐতিহ্যকে নতুন রূপে নতুন আঙ্গীকে বিশ্বের দরবারে উপস্থাপন করছে তরুন প্রজন্মের জাগ্রত বাঙ্গালীরা। বিশ্বের শতকোটি মানুষকে বাঙ্গালীরা জানিয়ে দিয়েছে আমারা এক জাতি আমাদের নিজস্ব ঐতিহ্য
রয়েছে আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি রয়েছে ।সবকিছু দেখেশুনে মনে হয়েছে পহেলা বৈশাখ বাঙ্গালীর জন্য এ দিনটি  মহা মিলন মেলা। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ নিখেছিলেন-‘অন্য দিন মানুষ এক একা কিন্তু উৎসবের দিন মানুষ একাকার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!