শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৬:৫৭ অপরাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

হবিগঞ্জে ঈদের বাজারে ‘অরগাঞ্জা’ আর ‘পুস্পা’র প্রতি ক্রেতার চাহিদা বেশী

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২

সৈয়দ সালিক আহমেদ :

রহমত মাগফেরাত আর নাজাতের মাস রমজানের শেষ দিকে এসে হবিগঞ্জ জমে উঠেছে ঈদের বাজার। গ্রাম থেকে শুরু করে শহরের প্রতিটি ঘরে ঘরে এখন ঈদুল ফিতরের আমেজ বিরাজ করছে।

দোকানীরা ব্যস্থ সময় পার করছেন দোকানের সাজ সজ্জা আর রকমারী কাপড়ের প্রর্দশন নিয়ে। অন্যদিকে শিশু নারী পুরুষ আবাল বুদ্ধ বণিতা ব্যস্থ নিজেদের পছন্দসই কেনাকাটা নিয়ে। শাড়ী কিংবা জামার সাথে মিল রেখে জুতা গহনা থেকে শুরু করে প্রসাধনী সামগ্রী কিনতে ছুটছেন এক দোকান থেকে অন্য দোকানে।

ব্যবসায়ীরা জানান, গত দুই বারের চাইতে এবারের ঈদে ক্রেতাদের সমাগম অনেক বেশী, তবে নতুন নতুন শাড়ী ও জামা বাজরে আসার কারণে ক্রেতারা ঘুরে ঘুরে দেখে শুনে কিনছেন। আমরাও চেষ্টা করছি ক্রেতাদেরকে সবোর্চ্চ ভাল সেবা প্রদানের জন্য। আবার ক্রেতারা বলছেন, কিছু কিছু দোকানে কাপড়ের দাম একটু বেশী।

শহরের ঘাটিয়া বাজার, সবুজ বাগসহ বিভিন্ন বিপনীতে এখন মানুষের উপছে পড়া ভিড়। আর বিক্রেতারা ক্রেতাকে আকৃষ্ট করে চেষ্টা করছেন নতুন নতুন ডিজাইনের শাড়ী জামা প্রর্দশনের। বিভিন্ন বিপনী বিতান ঘুরে দেখা যায়, এবারের ঈদে ইন্ডিয়ান ‘অরগাঞ্জা’ আর ‘কাজিবরণ’ শাড়ী চাহিদা বেশী।

চাহিদরা মধ্যে তুলনামূলক অরগাঞ্জা শাড়ীর দাম সাধ্যের মধ্যে। প্রতিটি শাড়ীর দাম ৩হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৬ হাজার টাকা পর্যন্ত। অন্যদিকে কাজিবরণ প্রতিটি শাড়ির দাম ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। ব্যবসায়ীরা বলছেন, বেশীরভাগ ক্রেতাদের চাহিদা ইন্ডিয়ান নতুন অরগাঞ্জা শাড়ীর প্রতি।

অপরদিকে এবারের ঈদে ইন্ডিয়ান ও কাশ্মিরী মিলে বেশ কিছু নতুন জামা বাজারে এসেছে। এর মধ্যে সারারা, পুস্পা, জিন, কাচা বাদাম, ভাজা বাদাম ইত্যাদি। তবে পুস্পা, জিন আর কাচা বাদামের চাহিদা বেশী। সারারা প্রতিটি ড্রেসের দাম ৭ থেকে ৮ হাজার, পুস্পা প্রতিটির দাম আড়াই থেকে ৩হাজার, কাচা বাদাম দেড় থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত।

শহরের বিভিন্ন দোকান ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন বয়সী নারী ক্রেতাদের উপস্থিতি লক্ষনীয়। অনেককে আবার জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে স্বপরিবারে এসেছেন কেনাকাটা করতে। দুই হাতে ব্যাগ নিয়ে হাসি মুখে গাড়ীতে চড়ে বাড়ী ফিরছেন।

ক্রেতারা জানান, গতবার ঈদের সময় করোনার কারণে কেনাকাটা করতে এসে অনেক বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয়েছে, এবার প্রাণ খুলে এক দোকান থেকে অন্য দোকানে ঘুরে ঘুরে নিজের পছন্দসই কেনাকাটা করতে পারছি।

আমাদের ছেলে মেয়েরাও অনেক খুশি। তবে অনেক ক্রেতা অভিযোগ করে বলেন, কিছু কিছু দোকানে কাপড়ের দাম অনেক বেশী চায়, যার কারণে পছন্দ হলেও কেনা সম্ভব হয় না। নিয়মিত বাজার মনিটরিং করলে হয়ত দাম একটু কমতেও পারে। তখন আমরা সাধ্যের মধ্যে সুখ টুকুও খুজে পাব।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!