সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

বিশ্বনাথ-লামাকাজী সড়ক খানা খন্দকে ভরপুর দেখার কেউ নেই : জনসাধারনের দুর্ভোগ

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০১৫

Biswanath sylhet (news) photo  05-10-15 মোঃ আবুল কাশেম,বিশ্বনাথ ( সিলেট ) প্রতিনিধি :
সিলেটের বিশ্বনাথ-রামপাশা-লামাকাজী সড়ক যথাসময়ে সংস্কারকাজ না করায় এখন বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সড়কের মাঝে খানাখন্দকে অনেকেই ‘মিনি পুকুর’ বলে অভিহিত করেছেন। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনসাধারণকে।

জানা গেছে, বিশ্বনাথ উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ ‘বিশ্বনাথ-রামপাশা-লামাকাজী’ সড়কটি যথসময়ে সংস্কার কাজ না হওয়ায় সড়কের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। চলতি বছরের শুরুতে সড়কের দুই কিলোমিটার সংস্কার কাজ করা হলেওÍ এখনো রয়ে গেছে প্রায় ১৩ কিলোমিটার এই সড়কের সংস্কার কাছের বাকি। বর্ষা শুরুর পূর্বে থেকে মোসল ধারে বৃষ্টি হওয়ার ফলে সড়কে থাকা গর্তগুলোতে পানি জমে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। চলতি বছরের মে মাসে রশিদপুর থেকে সড়কটির প্রথম ছয় কিলোমিটার অংশে সংস্কার কাজ সম্পন্ন হয়, তবে অধিক ক্ষতিগ্রস্থ অংশে কোন সংস্কার কাজ করা হয়নি বলে অভিযোগ এলাকাবাসী।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সড়কটির এমন বেহলা দশা দেখেও না দেখার ভান করছেন। সড়কের বিভিন্ন স্থানে কার্পেটিং উঠে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। ফলে এই সড়কে প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট-বড় দূর্ঘটনা। দেখলে মনে সড়কটি যেন মাছ চাষের উপযোগী। এ সড়কটির বেহাল দশার ফলে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন শিক্ষার্থী ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসা-যাওয়াকারী রোগীরা।

সওজ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের মে মাসে প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটির ‘বর্ধিতকরণ ও সংস্কার কাজ’ শেষে উদ্বোধন করা হয়। তবে উদ্বোধনের ১০/১৫ দিন পর থেকেই সড়কের বিভিন্ন অংশে গর্ত ও ভাঙ্গন সৃষ্টি হয় বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সড়কের দুই পার্শ্বে আটটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, একটি কলেজ, দুটি মাদ্রাসা, অসংখ্য মসজিদ, মৎস্য ও কৃষি খামার রয়েছে। উপজেলার চারটি ইউনিয়নের পাশাপাশি ছাতকসহ সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার মানুষও ওই সড়কে যাতায়াত করেন। ছাতকস্থ দুটি বৃহত্তম সিমেন্ট কোম্পানীর ভারী যানবাহনও চলাচল করে ওই সড়ক দিয়ে। তারপরও জনগুরুত্বপূর্ন সড়কটি সংস্কার হচ্ছে না।

শীঘ্রই সড়কটি সংস্কার কাজ করে জনসাধারণের দূর্ভোগ লাগব করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন এবং বর্তমান সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
অটোরিকশা চালক (সিএনজি) নুর ইসলাম বলেন, পেঠের কারণে ঝুঁকি নিয়ে আমাদেরকে ওই সড়কে যাতায়াত করতে হচ্ছে। এতে আমরা (চালক) আর্থিক, মানসিক ও শারীরিক ক্ষতির শিকার হচ্ছি।

শিক্ষার্থী হালিমা বেগম, সুহেল আহমদ, মামুনুর রশীদ বলেন, সড়কের গর্তগুলো দেখলে মনে হয় একেকটি পুকুর। আর সেই গর্তগুলোতে জমে থাকা পানি দেখলে যে কেউই তাতে মাছ শিকার করতে যাইবে।

রামাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার খান বলেন, সড়কটির বেহালদশার কারণে এলাকাবাসী চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। দ্রুত সড়কটির সংস্কার কাজ সম্পন্ন না হলে জনদূর্ভোগ আরোও বাড়বে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী শেখ মনিরুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিনের মধ্যেই সড়কটির সংস্কার কাজের টেন্ডার হবে। টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ হলেই সংস্কারকাজ শুরু হবে।

সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়া বলেন, সড়কটির সংস্কার অনেক আগেই শুরু হওয়ার কথা ছিল। বৃষ্টির কারণে কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। শীঘ্রই সড়কটি সংস্কার করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!