সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৬:৪০ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

বাহুবলে বিভক্ত হচ্ছে ভাদেশ্বর ইউনিয়ন

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৫

bahubol1বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলের সবচেয়ে বৈচিত্রময় ও বৃহৎ ইউনিয়ন ‘ভাদেশ্বর’ বিভক্ত হয়ে যাচ্ছে। পাহাড়ী ও সমতল অঞ্চলের ভিত্তিতে এ বিভক্তি কার্যকরের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে দুটি ভাগের সীমানা নির্ধারণ কাজ শুরু হয়েছে।

 

এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর থেকে ইউনিয়নবাসীর মাঝে বিরূপ প্রক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। বিভক্তি প্রক্রিয়া ঠেকাতে তৎপর হয়ে উঠেছেন ইউনিয়নের সচেতন নাগরিকরা। লিখিত আপত্তি দাখিলের পাশাপাশি আন্দোলনে নামার প্রস্তুতিও পুরোদমে চলছে।
সূত্র জানায়, বাহুবল উপজেলার ১৫১১৪ একর আয়তন নিয়ে ৭নং ভাদেশ্বর ইউনিয়ন গঠিত। এ ইউনিয়নের প্রায় অর্ধাংশজুড়ে পাহাড়ী এলাকা। সর্বশেষ জরিপ মতে, মোট জনসংখ্যা ৩৩ হাজার ১৪৯ জন-এর মাঝে এক তৃতীয়াংশ আদিবাসী (চা শ্রমিক ও খাসিয়া সম্প্রদায়)।

 

বৈচিত্রময় এ ইউনিয়নে নির্বাচন এলেই আদিবাসীদের কদর বেড়ে যায়। প্রার্থীরা নানা সূত্র খোজতে থাকেন আদিবাসীদের মাঝে স্থান করে নিতে। নিজস্ব কোন প্রার্থী না থাকায় প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়-পরাজয়ে আদিবাসী ভোটাররাই মূল ফ্যাক্টর হয়ে উঠেন।
কামাইছড়া চা বাগান এলাকার বাসিন্দা জনৈক কামরুজ্জামান বশির ইউপি চেয়ারম্যান পদে পরপর দু’টি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। দু’বারই তিনি সমতল অঞ্চলের চেয়ে পাহাড়ী অঞ্চলে বেশি ভোট পেয়েছেন।

 

পরবর্তীতে তিনি গত ২০১১ সনের ২৫ এপ্রিল পাহাড়ী অঞ্চল নিয়ে আলাদা ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠার আবেদন করেন। দীর্ঘদিন আবেদনটি ফাইল বন্দি থাকার পর সম্প্রতি তা নড়েচড়ে উঠে।

 

হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার পত্রালোকে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার গত ২১ সেপ্টেম্বর বাহুবলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমনা আল মজীদকে সীমানা নির্ধারণ কর্তকর্তা নিযুক্ত করেন।

 

এ প্রেক্ষিতি সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমনা আল মজীদ গত ২৬ নভেম্বর ভাদেশ্বর ইউনিয়নকে দুই ভাগে বিভক্ত করার লক্ষ্যে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড ভিত্তিক প্রাথমিক তালিকা প্রকাশ করেন।

 

এতে তিনি রশিদপুর চা বাগান, রশিদপুর টিজি বড়লেন, রশিদপুর টিজি সামরুটিলা, রশিদপুর টিজি উড়িয়া টিলা, সিতলাছড়া চা বাগান, সিতলাছড়া খাসিয়াপুঞ্জি, রামপুর টিজি, আলিয়াছড়া খাসিয়া পুঞ্জি, আলিয়াছড়া বস্তি, মুছাই, আমতলী চা বাগান, দিদারকোট, ফয়জাবাদ টিজি, ফয়জাবাদ বাদামটিলা, কামাইছড়া, দারাগাও টিজি ও বালুছড়া চা বাগানের সাথে সমতল অঞ্চলের রশিদপুর বাজার, রশিদপুর গ্রাম, শাহানগর গ্রাম ও সুফিয়াবাদ গ্রামকে অন্তর্ভূক্ত করে ভাদেশ্বর ইউপি’র (২য় অংশ) এবং অবশিষ্ট সমতল অঞ্চল নিয়ে ভাদেশ্বর ইউপি’র (১ম অংশ) প্রস্তাব করেন।

 

এতে তিনি ১ম অংশে জনসংখ্যা ২০ হাজার ৭৫৩ এবং ২য় অংশে ১২ হাজার ৩৯৬ জন উল্লেখ করেন। সীমানা নির্ধারণ কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত পত্রে উল্লেখিত প্রস্তাবনার উপর ১৫দিনের মধ্যে আপত্তি দাখিলের সময় নির্ধারণ করেন।
ইউনিয়ন বিভক্তি ও প্রস্তাবিত সীমানা সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথে স্থানীয় জনগণের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা গেছে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন গ্রাম থেকে ইউনিয়ন বিভক্তি ও সীমানা নিয়ে আপত্তি দাখিল প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

 

অন্যদিকে, ঐতিহ্যবাহী ইউনিয়নটিকে বিভক্তির হাত থেকে রক্ষা করতে চলছে আন্দোলনের প্রস্তুতি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!