বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫১ অপরাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

নবীগঞ্জের প্রাচীন ফুলতলী ঝর্ণা

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৫

৮৭৯৬৫শাহ মনসুর আলী নোমান : হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নের অর্šÍগত ফুলতলী বাজার সংলগ্ন ঐতিহ্যবাহী,সুপ্রাচীন ‘ফুলতলী ঝর্র্না’। এ ঝরনা কে নিয়ে এলাকায় অনেক জনশ্রুতি প্রচলিত আছে।

 

১৫ ডিসেম্বর সরজমিনে এ ঝরনা পরিদর্শন কালে সাক্ষাত হয় স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ আব্দুল্লাহ (৫৮)এস সাথে। তিনি জানান আজ থেকে প্রায় ২/৩শত বছর পূর্বে স্থানীয় ছয় মৌজার লোকজন, নবীগঞ্জ, বাহুবল ও তৎপার্শ্ববতী এলাকার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের অধিবাসীরা বিশুদ্ধ পানির অভাব এ ঝরনা দিয়েই পুরণ করতেন। বিভিন্ন জটিল রোগ মুক্তির উদ্দেশ্যে এ ঝরনার পানি পান করলে রোগী আরগ্য লাভ করতেন।

 

 

তিনি   পূর্বেকার কিছু জনশ্র“তি ও ইতিহাস তুলে ধরে বলেন,স্থানীয় লোকজনের বিবাহ কিংবা যে কোন সামাজিক অনুষ্ঠানের পূর্বে ঝরনার পাথরে কাছে এসে থালা, বাসন, বাটি, গ্লাস ও চামচ এর সংখ্যা বললে পরদিন উল্লেখিত পরিমান স্বর্ণের থালা, বাসন, গ্লাস, বাটি ও চামচ ঝরনায় ভেসে উঠত। আবার অনুষ্ঠান শেষে হবার পর থালা,বাসন, বাটি, গ্লাস ও চামচ পরিস্কার করে ঝরনার পনিতে রেখে দিলে কিছুক্ষনের মধ্যে তা অদৃশ্য হয়ে যেত।

 

 

এ রেওয়াজ দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় প্রচলিত ছিল। কিন্ত একটি অনুষ্ঠানে স্থানীয় এক আয়া লোভের বশীর্ভূত হয়ে একটি স্বাণের্র বাটি রেখে দেয়, এ ঘটনার পর থেকে ঝরনা তে আরএ গুলো ভাসেনা। তিনি এ গল্প উনার নানা ও দাদার কাছ থেকে শুনেছেন বলে জানান।

 

স্থানীয় বাসিন্দা,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নবীগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি ও সাবেক গজনাইপুর ইউ/পি চেয়াম্যান জনাব এমদাদুর রহমান মুকুল জানান, তিনি ও এ ধরনের কাহিনী উনার পূর্ব পুরুষদের কাছ থেকে শুনেছেন, তবে এর কোন দালিলিক ভিত্তি আছে বলে উনার জানা নেই।

 

ঢাকা সিলেট মহাসড়ক নির্মিত হওয়ার অনেক পুর্বে পায়ে হেঁটে ছাত্র-ছাত্রীরা তৎকালীন সময়ের এলাকার একমাত্র দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে যাওয়া আসা করত এবং ঐ ঝরনার পানি পান করে তৃষ্ণা মেটাত। এখন ও দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ভ্রমন প্রিয় লোকজন ঐতিহাসিক, সুপ্রাচীন ও অলৌকিক এই ঝরনা দেখার জন্য আসেন । ঢাকা সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন উত্তর পূর্বদিকে এই ঐতিহ্যবাহী ঝর্নাটির অবস্থান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!