বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ::
হবিগঞ্জ জেলার অনলাইন নিউজ পোর্টালের মধ্যে অন্যতম ও সংবাদ মাধ্যমে আলোড়ন সৃষ্টিকারী গণমাধ্যম দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডট কম-এ জরুরী ভিত্তিতে হবিগঞ্জ,নবীগঞ্জ,শায়েস্তাগঞ্জ,চুনারুঘাট,মাধবপুর,বাহুবল,বানিয়াচং,আজমিরিগঞ্জ,থানার সকল ইউনিয়ন,কলেজ, স্কুল থেকে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহী প্রার্থীগণ যোগাযোগ করুন নিম্ন ঠিকানায় ইমেইল করার জন্য বলা হলো। Email : shaistaganjnews@gmail.com Phone: 01716439625 & 01740943082 ধন্যবাদ, সম্পাদক দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ

সবুজ পাহাড়ে দৃষ্টিনন্দন ফ্রুটস ভ্যালী

দৈনিক শায়েস্তাগঞ্জ ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: শুক্রবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৪

কামরুল হাসান: পাহাড়ের পাদদেশে শাহজীবাজার গ্যাস ফ্লিল্ড। তাকালেই চোঁখে পড়বে অনির্বাণ শিখা, গ্যাস সংরক্ষণ ও উত্তোলণের যন্ত্রপাতি। তিনদিকে উচু-নিচু পাহাড়, একদিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও রেলপথ। রাবার ও চা-বাগানে ঘেরা পাহাড়ের টিলায় দৃষ্টিনন্দন ফ্রুটস ভ্যালী।

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজীবাজার গ্যাস ফ্লিল্ডের সীমানায় অব্যবহৃত পাঁচ একর উচু টিলায় গড়ে তোলা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন এই ফলের বাগান। যার নাম দেয়া হয়েছে ‘ফ্রুটস ভ্যালী’।

২০১০ সালে ভ্যালীর পাশের টিলায় বানানো হয় সুইমিং। ‘ফ্রুটস ভ্যালী’ এখন শুধু হবিগঞ্জবাসীর কাছেই পরিচিত নয়, দেশের ভ্রমনপিপাসু পর্যটকদের কাছে এর পরিচিতি ছড়িয়ে পড়েছে।

‘ফ্রুটস ভ্যালী’র সাথে যিনি অতপ্রত ভাবে জড়িত তিনি হলেন গ্যাস ফিল্ডের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) এটি এম নাছিমুজাম্মান।

২০০৩ গড়ে উঠা ‘ফ্রুটস ভ্যালী’তে এখন ২শত জাতেরও বেশি দেশী-বিদেশী ফলের গাছ রয়েছে। সারি সারি গাছ ছাড়াও ভ্যালীতে রয়েছে মনকাড়া প্যাভিলিয়ান, মিনি বাংলো, ফোয়ারা।

গাছ গাছালির সাথে গড়ে তোলা হয়েছে পশু-পাখির মিনি চিরিয়াখানা।

খাচার ভিতর ময়না, তোতা, ঘুঘু, জাভা চড়ই, ককোলেট, কুয়েল, বাজুরিকা, চন্দনা, মুনিয়া, দোয়েলসহ ১৩ জাতের পাখি, ৮ জাতের কবুতর রয়েছে। ফোয়ারায় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ খেলা করছে আপন মনে।

টারকি মোরগ ছাড়াও খরগোশের লাফালাফি দেখলে নয়নজুড়িয়ে যায়। ভ্যালীর অধিকাংশ গাছে নিয়মিত ফল দিচ্ছে। পশু পাখিরা দিচ্ছে বাচ্চা।

এখানে পর্যটকদের জন্য গাইড হিসেবে এখানে কাজ করছেন তিন যুবক।

গাইড এখলাছুর রহমান জানান- পর্যটকরা আসলে ভাললাগে। এখানে যারা একবার এসেছেন দ্বিতীয়বার না এসে পারেন না। তবে সরকারী প্রতিষ্ঠান হওয়ায় জনসাধারণ অবাধে প্রবেশ করতে পারেন না। কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে পূর্ব অনুমতি নিয়ে দেখা যায় ‘ফ্রুটস ভ্যালী’।

টিএম নাছিমুজাম্মান জানান, প্রতি বছর সরকার প্রদত্ত বৃক্ষরোপনের জন্য অর্থ দিয়ে এই ভ্যালীর উন্নয়নে নতুন নতুন গাছের চারা লাগানো হয়। দেশী বিদেশী বৃক্ষরোপণের জন্য ইতিমধ্যে বিভাগীয় পুরস্কার লাভ করেছে এবং এই ভ্যালীর নাম জাতীয় পর্যায়ে পাঠানো হয়েছে।

নিজ বুদ্ধিমত্তায় গ্যাসফিল্ডের অপ্রয়োজনীয় মালামাল ব্যবহার করে দৃষ্টিনন্দন প্যাভিলিয়ান, মিনি বাংলো তৈরী করে প্রশংসার দাবী রেখেছেন।

বাংলোর ভিতরে শীতলপাটির সিলিং লাগানো দেখলে মনকাড়ে। বারান্দায় বসে খুব সহজেই রঘুনন্দন পাহাড়ের নৈসর্গিক সৌন্দর্র্য্য চোখে পড়ার মত।

উচু পাহাড়ের ভ্যালীতে উঠতে পাকা সিঁিড়পথ বাগানকে এক নান্দনিক সৌন্দর্য্যে বিকশিত করেছে।

এই ভ্যালীতে দেশী বিদেশী ফলের গাছের চারায় ছোঁয়া লেগেছে বিভিন্ন সময়ে এমপি, মন্ত্রীসহ সরকারের পদস্থ কর্মকতাবৃন্দের।

তাঁরা পরিদর্শন করে প্রশংসিত করেছেন কর্তৃপক্ষকে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020 shaistaganj.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazarshaista41
error: Content is protected !!